সোনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় সোহাগের স্বীকারোক্তি।

0
169

 

 

বিশেষ প্রতিনিধিঃ সোনাগাজীতে এক চা দোকানীর ঘরে ডাকাতি করতে গিয়ে টাকা ও স্বর্ণালংকার না পেয়ে মাদ্রাসায় পড়ুয়া মেয়েকে (১৬) ধর্ষণ করেছে বলে স্বীকার করেছে ঘটনায় জড়িত একই এলাকার জোবায়ের ইসলাম সোহাগ। মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার রাত ৩টার দিকে ফাজিলের ঘাট সংলগ্ন উত্তর চরমজলিশপুর এলাকা থেকে জোবায়ের ইসলাম সোহাগকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মঙ্গলবারর দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শরাফ উদ্দিন আহমদের আদালতে হাজির করা হলে ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি প্রদান করে সে। জবানবন্দিতে ঘটনার বর্ণনা দিয়ে অপরাপর জড়িতদের নাম প্রকাশ করে। গ্রেফতারকৃত সোহাগ একই এলাকার বাসু মেম্বারের বাড়ির সাইফুল ইসলাম প্রকাশ নজরুল ইসলাম প্রকাশ রুবেলের ছেলে

আদালতে সোহাগ জানিয়েছে ৬ জন সংঘবদ্ধ হয়ে ডাকাতির পরিকল্পনা করে। ডাকাতিকালে তারা ৫ হাজার টাকা পেয়েছে। পরে একটি কক্ষে নিয়ে মাদরাসা পড়ুয়া ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে সে।
ভিকটিমের শারিরীক পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত মিলেছেও সে ইতিপূর্বে ২২ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে।

প্রসঙ্গত; বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে উপজেলার চর মজলিশপুর ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর গ্রামে এক চা দেকানীর ভাড়া বাসায় হানা দেয় ৮-৯ জন মুখোশধারী সশস্ত্র ডাকাত। ডাকাতরা বাড়ির দরজার ছিটকিনি ভেঙ্গে ভেতরে ঢুকে কাপড় দিয়ে হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের মুখে পরিবারের সবাইকে জিম্মি করে ফেলে। এসময় ঘরে সামান্য টাকা ছাড়া স্বর্ণালংকার না পেয়ে ডাকাতদলের এক সদস্য ওই ব্যবসায়ীর মেয়েকে ঘরের অন্য একটি কক্ষে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। এ ঘটনায় ৪ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে ওই চা দোকানী বাদি হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here