চারজন বন্দীকে টাঙ্গাইল কারাগার থেকে মুক্তি দিয়েছে সরকার

0
76

গ্রামীণটাইমস: করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে কম সাজা পাওয়া চারজন বন্দীকে টাঙ্গাইল জেলা কারাগার থেকে মুক্তি দিয়েছে সরকার।

শনিবার (২ মে) দুপুরে টাঙ্গাইল জেলা কারাগারের জেলার আমান উল্লাহ চার বন্দী মুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান ছয় থেকে এক বছর মেয়াদী সাজাপ্রাপ্ত চার বন্দীকে মুক্তি দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে টাঙ্গাইল জেল কারাগারের জেলার আমান উল্লাহ জানান, দেশে করোনা ভাইরাসের কারণে অপেক্ষাকৃত লঘু অপরাধে কম সাজা পাওয়া বন্দীদের সরকারি সিদ্ধান্ত মোতাবেক প্রতিটি জেলাতেই মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। সেই সিদ্ধান্ত মোতাবেক ঢাকা বিভাগে মোট ২৯ জনকে মুক্তি দেয়া হবে। তারই অংশ হিসেবে টাঙ্গাইল জেলা কারাগার থেকে চারজনকে মুক্তি দেয়া হয়েছে।

মুক্তি পেয়ে তিনজন দুপুরে চলে গেছেন। বাকি একজনের ২০ হাজার টাকা জরিমানা হয়েছিল। সেই জরিমানার টাকা দিয়ে বিকেলে সে চলে গেছে বলে জানা যায়। তারা সবাই চুরি ও মাদক মামলার আসামি ছিল।

উল্লেখ্য, টাঙ্গাইল জেলা কারাগারে ধারণ ক্ষমতার দ্বিগুণেরও বেশি বন্দী রয়েছে। ৪৭৬ জন ধারণক্ষমতার এ কারাগারে বর্তমানে বন্দী রয়েছেন এক হাজার ৮৪ জন। ধারণ ক্ষমতার অধিক বন্দী থাকায় করোনাভাইরাসের ঝুঁকিতে রয়েছে এ কারাগার। তারপরও বন্দীদের নিরাপত্তায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে কারা কর্তৃপক্ষ।

কারাগারটিতে জেল অফিস, স্টাফ কোয়ার্টার ছাড়াও তিনটি বন্দীশালা রয়েছে। প্রতিদিনই এখানে নতুন বন্দী আসেন, আবার অনেকেও অন্য কারাগারে স্থানান্তরিত হন। কারাগারে বিভিন্ন পদে কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছে ১৫৭ জন। ভেতরে বন্দীদের চিকিৎসার জন্য রয়েছে একটি কারা হাসপাতাল। এর শয্যা সংখ্যা মাত্র ২৪টি। নারী বন্দীদের জন্য মাত্র একটি ওয়ার্ড। সেখানে বন্দী আছেন ৪০ জন। অন্যান্য ওয়ার্ড ছাড়াও কনডেম সেল রয়েছে চারটি।

৩ মে / গ্রামীণ টাইমস/ এমএসআইএস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here