আজ ৬৩টি পৌরসভায় ভোট

0
23

গ্রামীণ টাইমস: প্রথম দুই ধাপে ৮৪টি পৌরসভার পর তৃতীয় ধাপে ৬৩টি পৌরসভায় ভোট আজ শনিবার (২৯ জানুয়ারি)। সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়ে একটানা ভোট নেওয়া হবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এই ধাপের সবগুলো পৌরসভায় ব্যালট পেপারের মাধ্যমে ভোট নেওয়া হবে। অনিয়ম ঠেকাতে শনিবার সকালে কেন্দ্রে কেন্দ্র ব্যালট পেপার পাঠাবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

ইসির যুগ্ম-সচিব ও পরিচালক (জনসংযোগ) এস এম আসাদুজ্জামান বলেন, তৃতীয় ধাপে ৬৩টি পৌরসভায় অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

এরই মধ্যে ভোটের সব ধরনের প্রচার শেষ হয়েছে। নির্বাচনি পরিবেশ-পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চার স্তরের নিরাপত্তা থাকছে ভোটের পরদিন পর্যন্ত। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি), র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব), পুলিশ ও আনসার সদস্যরা টহল শুরু করেছেন আজ শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) থেকেই। সঙ্গে থাকছেন নির্বাহী ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট। আর শেষ মুহূর্তের নির্দেশনায় ইসি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষে দ্রুত ফল পাঠাতে বলেছে।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, এই ধাপে ৬৪ পৌরসভায় ভোটের জন্য তফসিল ঘোষণা হয়েছিল। তবে ময়মনসিংহের ত্রিশাল পৌরসভায় একজন মেয়র প্রার্থীর মৃত্যুতে সেখানকার ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। ফলে ভোট হচ্ছে ৬৩টি পৌরসভায়।

এদিকে, এই ৬৩টি পৌরসভার মধ্যে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া, কুমিল্লার লাকসাম ও বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে একক প্রার্থী থাকায় এই তিন পৌরসভায় মেয়র পদে নির্বাচন হবে না। এছাড়া ২৫ জন কাউন্সিলর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। আর সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ৯ জন। সব মিলিয়ে এরই মধ্যে মোট ৩৭ জন জনপ্রতিনিধি ভোটের লড়াইয়ে না নেমেই নির্বাচিত হয়ে গেছেন।

ইসি জানিয়েছে, বাকি পৌরসভাগুলোতে চূড়ান্ত লড়াইয়ে রয়েছেন মোট ৩ হাজার ৩৪৪ জন প্রার্থী। এর মধ্যে মেয়র পদে ২২৯ জন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৭৫৫ জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২ হাজার ৩৬০ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এদিকে, গত ১৪ ডিসেম্বর তৃতীয় ধাপের এই পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর। এ ধাপে পৌরসভাগুলোতে নির্বাচনে অংশ নিতে আগ্রহীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ছিল ৩১ ডিসেম্বর, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হয়েছে ৩ জানুয়ারি। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ছিল ১০ জানুয়ারি।

এর আগে, গত ২৮ ডিসেম্বর প্রথম ধাপে ২৪টি ও ১৬ জানুয়ারি দ্বিতীয় ধাপে ৬০টি পৌরসভায় ভোটগ্রহণ হয়। এর মধ্যে প্রথম ধাপের নির্বাচনে ৬৫ দশমিক ৬ শতাংশ ভোট পড়ে। দ্বিতীয় ধাপে অবশ্য ভোটের পরিমাণ কিছুটা কমে। এই ধাপের ৬০টি পৌরসভায় গড়ে ৬১ দশমিক ৯২ শতাংশ ভোট পড়ে।

নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, সারাদেশে ৩২৯টি পৌরসভা রয়েছে। এর মধ্যে প্রথম তিন ধাপে ১৪৭টি পৌরসভার ভোট হচ্ছে। এছাড়া গত ৩ জানুয়ারি ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ ধাপে ৫৬টি পৌরসভায় ভোট নেওয়া হবে। আর পঞ্চম ধাপের তফসিল ঘোষণা করা হয় গত ১৯ জানুয়ারি। তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ভোট হবে ৩১টি পৌরসভায়।

এ নিয়ে মোট ২৩৭টি পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। এর মধ্যে অবশ্য প্রথম দুই ধাপেই একটি করে পৌরসভায় ভোট হয়নি। তৃতীয় ধাপেও স্থগিত থাকছে একটি পৌরসভার ভোট।

-এমএসআইএস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here