হারতে বসা ম্যাচে বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মেসির বার্সা

0
32

গ্রামীণ টাইমস: এমন ম্যাচ দেখতেও ভাগ্য লাগে। হারতে বসা ম্যাচে এত সুন্দরভাবে ক্যামব্যাক বার্সেলোনার পক্ষেই সম্ভব। বুধবার রাতে গ্রানাডার বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে ৮৮ মিনিট পর্যন্ত ২-০ গোলে পিছিয়ে ছিল মেসি-গ্রিজমানরা। বাকি সময়ে ২ গোল করে ম্যাচে সমতা ফেরায় তারা। এরপর অতিরিক্ত সময়ে তিন গোল করে ৫-৩ ব্যবধানে গ্রানাডাকে হারিয়ে স্প্যানিশ কোপা ডেল রের সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে রোনাল্ড কোম্যানের শিষ্যরা।

ম্যাচের ৩৩তম মিনিটেই এগিয়ে যায় গ্রানাডা। বাঁ দিকের বাইলাইনের কাছে সামুয়েল উমতিতির ভুলে বল পেয়ে ছয় গজ বক্সে বাড়ান আলবের্তো সরো। পায়ের টোকায় সহজেই জাল খুঁজে নেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার কেনেদি।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে বার্সেলোনাকে চমকে দিয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সলদাদো। নিজেদের ডি-বক্সের একটু সামনে থেকে সতীর্থের লম্বা করে বাড়ানো বল ধরে প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে ঢুকে গোলরক্ষক মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেনকে পরাস্ত করেন এই স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড।

গ্রানাডা ৮৭ মিনিট পর্যন্ত ২-০ গোলে এগিয়ে ছিল। সবাই ধরেই নিয়েছিল বার্সেলোনাকে হারিয়ে কোপা ডেল রের সেমিফাইনালে যাচ্ছে গ্রানাডা। কিন্তু ৮৮ আঁতোয়ান গ্রিজমান গোল করে ব্যবধান কমান। আর যোগ করা সময়ে (৯০+২) জর্ডি আলবা গোল করে সমতা ফেরান।

১০০তম মিনিটে বার্সাকে এগিয়ে নেন গ্রিজমান। বাঁ দিক থেকে আলবার ক্রসে লাফিয়ে হেডে গোলটি করেন তিনি। দুই মিনিট পর গ্রানাডার কার্লোস নেভাকে সের্জিনো দেস্ত ডি-বক্সে ফেলে দিলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। ঠাণ্ডা মাথার স্পট কিকে সমতা টানেন ভিকো। ১০৮তম মিনিটে বার্সেলোনাকে আবার এগিয়ে নেন ডি ইয়ং। মেসির নিচু শট গোলরক্ষক ফেরানোর পর কাছ থেকে বল জালে পাঠান তিনি। আর ১১৩তম মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলে জয় নিশ্চিত করেন আলবা।

-এমএসআইএস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here