কুড়িয়ে পাওয়া বোতলে চা ভেবে পান করায় শিশুর মৃত্যু

0
36

গ্রামীণ টাইমস: বাড়ির পাশে খেলছিল দুই ভাই তাফছির ও স্বাধীন। খেলতে খেলতে আবর্জনার স্তুপ থেকে কুড়িয়ে পায় একটি বোতল। বোতলের ভেতরে থাকা তরলকে চা ভেবে ছোট ভাই তাফছির খেয়ে নেয়। সেই তরল পান করার পর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে তাফছির। এরপর নেয়া হয় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে। তবে সে পর্যন্ত আর বাঁচানো যায়নি তিন বছরের তাফছিরকে।

পুলিশ ও চিকিৎসক জানিয়েছে কুড়িয়ে পাওয়া ওই বোতলে ছিল ঘাসমারা বিষের অস্তিত্ব। মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার হাকিমপুর গ্রামে।

স্থানীয়রা জানায়, সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টার দিকে আলমডাঙ্গার হাকিমপুরের নৈশপ্রহরীর দুই ছেলে স্বাধীন (০৫) ও তাছফির (০৩) বাড়ির পাশে খেলা করছিল। এসময় কুড়িয়ে পাওয়া বোতলের তরল পান করার পর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে তাছফির। হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের মা বলেন, বড় ছেলে আমাকে জানায় যে ছোট ছেলে তাছফির কুড়িয়ে পাওয়া বোতলের পানি পান করেছে। তারপর থেকেই অসুস্থ্য হয়ে পড়েছে। পরে আমি তাছফিরের মুখে বিষের গন্ধ পাই। কুড়িয়ে পাওয়া বোতলের ভেতর থাকা তরলকে চা ভেবে খেয়েছে বলে জানায় তাছফির। ওই বোতলের পানি খেয়ে তাছফির অসুস্থ্য হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জান্নাতুল ফেরদৌস জানান, হাসপাতালে নেয়ার পর পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে শিশু তাছফিরকে মৃত ঘোষণা করা হয়। বিষাক্ত পানীয় পান করে বিষক্রিয়ায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) একরাম হোসেন জানান, কুড়িয়ে পাওয়া বোতলে ছিল ঘাসমারা বিষের অস্তিত্ব। ওই বিষ পান করেই মারা যায় তাছফির। পরিবারের কোন আপত্তি না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

-এমএসআইএস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here