প্রেমিকাকে অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় হত্যা ও গুম করার অপরাধে যুবকের মৃত্যুদণ্ড

0
29

গ্রামীণ টাইমস: কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে প্রেমিকাকে অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় হত্যার পর মরদেহ গুম করার অপরাধে এমদাদুল হক নামের এক যুবককে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে কিশোরগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা জজ কিরণ শঙ্কর এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত এমদাদুল হক জেলার তাড়াইল উপজেলার জাওয়ার গ্রামের আবদুল কুদ্দুছের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, এমদাদুল হক মোবাইল ফোনে একই উপজেলার গজেন্দ্রপুর গ্রামের জমির উদ্দিনের মেয়ে শাহনাজের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেন। এক পর্যায়ে শাহনাজ অন্তঃসত্ত্বা হন। এ অবস্থায় বিয়ের জন্য এমদাদুল হককে চাপ দেন তিনি।

এরপর ২০১৭ সালের ২১ মে রাতে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হন শাহনাজ। ওই বছরের ২৬ মে পূর্ব জাওয়ার কান্দিপাড়া গ্রামের একটি জমিতে মাটিচাপা অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় শাহনাজের মা খাইরুন্নেছা বাদী হয়ে এমদাদুল হককে আসামি করে মামলা রুজু করেন। পুলিশ ২৮ মে এমদাদুল হককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আদালতের কাছে তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। পুলিশ তদন্ত শেষে ২০১৮ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন কিশোরগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট এম এ আফজল।

-এমএসআইএস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here